হলি আর্টিজান মামলার রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের সন্তোষ

0
4

হলি আর্টিজান মামলার রায়ে সাত আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবদুল্লাহ আবু। আজ বুধবার (২৭ নভেম্বর) রায়ের পর ঢাকা মহানগর দায়রা আদালত প্রাঙ্গণে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এ সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

আবদুল্লাহ আবু বলেন, ‘এই রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। একজনের খালাসের বিষয়ে আমরা পর্যালোচনা করে যদি মনে করি, আপিল করা যাবে।’ তিনি বলেন, ‘আইএসের বরাত দিয়ে তারা হামলার দায় স্বীকার করেছে, কিন্তু এদেশে আইএসের অস্তিত্ব আছে, সেটা তদন্তে আসে নাই। এখানে যারা বিক্ষিপ্তভাবে জঙ্গি আছে, তারা পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।’

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাত পৌনে ৯টায় হলি আর্টিজান বেকারিতে অতর্কিতে আক্রমণ করেছিলেন পাঁচ জঙ্গি। তাঁরা ভেতরে থাকা সবাইকে জিম্মি করে ফেলেন। একে একে গুলি চালিয়ে ও কুপিয়ে ১৭ বিদেশি ও তিন বাংলাদেশিকে হত্যা করেছিলেন। সেখানে তাত্ক্ষণিক অভিযান চালাতে গিয়ে নিহত হন দুই পুলিশ কর্মকর্তা। আহত হন র‌্যাব-১-এর তৎকালীন অধিনায়ক লে. কর্নেল তুহিন মাসুদ, পুলিশের গুলশান অঞ্চলের অতিরিক্ত উপকমিশনার আবদুল আহাদসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য।

ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় আটজনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছিল গত বছরের ২৩ জুলাই। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের পরিদর্শক হুমায়ুন কবির ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

আজ বুধবার (২৭ নভেম্বর) বেলা সোয়া ১২টার দিকে ওই মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। এতে জেএমবির সাত সদস্যের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। মামলায় অপর আসামি মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজানকে খালাস দেওয়া হয়েছে।