শোভনের রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

0
10
ফাইল ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে সহসভাপতি (ভিপি) পদে পরাজিত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলেছেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তার উদারতার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তার পরিবারের রাজনৈতিক পটভূমির কথা তুলে ধরেন। ছাত্রলীগ সভাপতিকে তার পাশে বসান প্রধানমন্ত্রী।

শনিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ডাকসুর নির্বাচিত প্রতিনিধিরা। এ সময় সেখানে ছাত্রলীগের সভাপতি শোভনও ছিলেন।

শোভন পরাজিত হয়েও ভিপি নুরুল হক নুরকে বুকে টেনে নেয়ায় তার প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, শোভন রাজনৈতিক উদারতার পরিচয় দিয়েছে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শোভনের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল এমনও ইঙ্গিতও দেন।

তিনি বলেন, ভোটে হারার পর শোভন আমার কাছে এসেছে। আমি শোভনকে বলেছি- ভোটে হেরেছ, এবার যাও তাকে (নূর) অভিনন্দন জানাও। সে তাই করেছে। ও যেভাবে নেতৃত্ব দিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছে, তাতে ওর রাজনৈতিক নেতৃত্বই ফুটে উঠেছে। আমি এ জন্য শোভনকে ধন্যবাদ জানাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শোভন আওয়ামী পরিবারের সন্তান। ওর দাদা ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধ সংগঠক ও কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং এমপি ছিলেন। ওর বাবা উপজেলা চেয়ারম্যান, ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি। সে তার রাজনৈতিক উদারতা দেখিয়েছে।

প্রসঙ্গত প্রায় ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে সহসভাপতি (ভিপি) নির্বাচিত হন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা নুরুল হক নূর। সাধারণ সম্পাদকসহ ২৩ পদে জয়লাভ করে ছাত্রলীগ। এদিকে কারচুপির অভিযোগ তুলে বিভিন্ন প্যানেলের পক্ষ থেকে ভোট বাতিল করে পুনঃতফসিলের দাবি উঠেছে। ভিপি নুরুল হক নূরও ৩১ মার্চের মধ্যে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন।